আমি কি আমার মেমরি?

আমি কি আমার মেমরি?

ব্রেন; দি স্টোরি অব ইউ, পার্ট-৪

Last updated:

১৯৬৬ সালের পহেলা আগষ্ট। ইউনিভার্সিটি অব ট্যাক্সাসের ২৫ বছর বয়সী একজন ছাত্র অদ্ভুত এক ঘটনার অবতারণা করেন। তার নাম হুইটম্যান। সেদিন শান্ত,শিষ্ট ও ভদ্র ছেলেটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবজার্ভেটরি ডেকে বন্ধুক, গোলা বারুদ এবং টিনজাত খাবার নিয়ে যায়! প্রায় ৯৬ মিনিট সে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করে। ঘটনাস্থলে ১৪ জন নিহত ও প্রায় ৩০ জন মানুষ আহত হয়। অস্টিনের দুজন পুলিশ, হিউস্টন ম্যাককয় এবং র‍্যামারিও মার্টিনেজ দ্রুত অবজার্ভেটরি ডেকে চলে যায়।

আমি কি আমার মেমরি?
UT Tower

তারা জানতোনা কে বা কারা এ কাজ করেছিল কিন্তু তারা সন্দেহজনকভাবে হুইটম্যানকে গুলি করেন ও তিনি মারা যান। পরে তারা আবিষ্কার করেন যে হুইটম্যান সেদিন সকালে তার মা ও স্ত্রীকেও হত্যা করেছিলেন। এই শুটিং রেডিও এবং টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয় এবং এটি প্রধান আন্তর্জাতিক সংবাদে পরিণত হয়েছিলো সে সময়। হুইটম্যান কোনো সন্ত্রাসী ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন ইঞ্জিনিয়ার, যিনি ব্যাংক টেলার হিসেবে কাজ করতেন। তার স্ত্রী ও মাকে হত্যা করার পর তিনি একটি শর্ট নোট লিখেছিলেন। সেখানে লেখা ছিলঃ

I don’t really understand myself these days. I am supposed to be an average reasonable and intelligent young man. However, lately (I cannot recall when it started) I have been a victim of many unusual and irrational thoughts…After my death I wish that an
autopsy would be performed on me to see if there is any visible physical disorder

Gun Violence And Mental Health Laws, 50 Years After Texas Tower Sniper :  Shots - Health News : NPR

হুইটম্যানের অনুরোধ রাখা হয়েছিল। অটোপসির পর প্যাথোলজিস্টরা বিবৃতি দেন, হুইটম্যানের মস্তিষ্কে ক্ষুদ্র একটি টিউমার রয়েছে। এটি একটি নিকেলের সমান। এই টিউমারটি তার মস্তিষ্কের এমিগডালার বিপক্ষে কাজ করছিলো যে অংশটি আতঙ্ক ও আগ্রাসনের সাথে জড়িত। এমিগডলার উপর এই ক্ষুদ্র পরিমাণ চাপই তার মস্তিষ্ককে বদলে দেয়। যার ফলে সে তার স্বাভাবিক চরিত্র অতিক্রম করে বিভিন্ন সাংঘর্ষিকতামূলক আচরণ করে। তার ব্রেন ম্যাটার পরিবর্তনের সাথেসাথে সে নিজেও বদলে যায়।

আমি কি আমার মেমরি?
হুইটম্যানের মৃত লাশ

এটি একটি চুড়ান্ত উদাহরণ। কিন্তু আপনার মস্তিষ্কের আরো ক্ষুদ্রতর পরিবর্তনও আপনার আমিত্বের ফেব্রিক পরিবর্তন করে দিতে পারে। এক্ষেত্রে আমরা ড্রাগ ইনজেশন অথবা এলকোহলের কথাও বলতে পারি। নির্দিষ্ট কিছু এপিলেপ্সি আছে যা মানুষকে অনেক বেশি ধার্মিক করে তোলে। পারকিনসন রোগের কারণে মানুষ মাঝেমাঝে ঈশ্বরের উপর বিশ্বাস হারিয়ে ফেলে আবার পারকিনসনের মেডিসিন মানুষকে জুয়াড়িতে পরিণত করে। এটি শুধুমাত্র কোনো অসুস্থ্যতা বা আমাদের মধ্যে ঘটা কেমিক্যাল পরিবর্তন নয়; একটি মুভি থেকে শুরু করে আমাদের ফেসবুক চেট পর্যন্ত সবকিছু আপনার মস্তিষ্কের নিউরাল নেটওয়ার্ক পূনর্গঠন করে যেটাকে আপনি “আমি’ বলে সামারাইজ করেন। অতএব আপনি আসলে কে? আপনার মস্তিষ্কের ভেতর কি গভীর কোনো ” আমি” উপস্থিত? একদম কেন্দ্রে?

আমি কি মেমরির যোগফল?

অনেকেই বলেন যে আমি আসলে মেমরির যোগফল। আমার মস্তিষ্কের ইনফরমেশনই বলে দেয় আমি কে। জন্মের পর থেকে এ পর্যন্ত আমার মস্তিষ্কের ৮৬ বিলিয়ন সেলের ভেতর এ অসীম মহাবিশ্বের যে তথ্যের পরমাণু আটকে গেছে সেটাই মূলত আমার “আমি”! কিন্তু সত্যিই কি তাই?

আমাদের ব্রেন ও শরীর এতটাই পরিবর্তন হয়ে যায় যে আমাদের হাত ঘড়ির সময়ের মতো এত সহজে আমরা সেটাকে ডিটেক্ট করতে পারিনা! প্রতি চারমাসে আপনার রেড ব্লাড সেল পুরোপুরি প্রতিস্থাপিত হয়। আপনার স্কিন সেল প্রতিস্থাপিত হয় প্রতি সপ্তাহে। সাত বছরের মধ্যে আপনার দেহের প্রতিটি এটম অন্যান্য এটমগুলো দ্বারা সম্পূর্ণ প্রতিস্থাপিত হয়ে যায়। আপনার দেহে এটমের সংখ্যা 7,000,000,000,000,000,000,000,000,000 (7 octillion) বা ৭ অক্টিলিয়ন। প্রতি সাত বছর পরপর নতুন নতুন এটম এসে পুরাতন এটমের স্থান বাতিল করে দেয়। আজ থেকে ৭ বছর পূর্বে আপনি যে এটমগুলোর ভেতর বাস করতেন এখন আপনি সেগুলোর ভেতর নেই।

ফিজিক্যালি আপনি প্রতিদিনই নতুন। কিন্তু এত বিলিয়ন বিলিয়ন ভার্সনের কপির মধ্যেও আপনার একটি ” আমি” কনস্ট্যান্ট বা ধ্রুব। কেনো বিলিয়ন ভার্সনের আপনি একে অন্যের সাথে কনফ্লিক্ট করছেনা? আর কীভাবেই বা এত ট্রিলিয়ন পরিবর্তনশীলতার ভেতরও আজও আপনি ঠিক ২০ বছর পূর্বের আপনার মধ্যেই রয়ে গেছেন, কেনো আপনার মন থেকে সেন্স অব সেল্ফ বদলায়নি? আসলে সাত বছর পূর্বের অণুগুলো এখন আপনাকে ধারণ না করলেও আপনার শরীরের নতুন এটমের কাছে তারা একটি মেমরি পাঠিয়ে চলে গেছে। আপনার মস্তিষ্কের মেমরি। সম্ভবত, এই মেমরিই, আপনাকে বলে দেয় যে আপনি আসলে কে। এটি আপনার পারসোনালিটির কেন্দ্রে বাস করে যা আপনাকে একটি স্বতন্ত্র ও ধারাবাহিক “আমি বোধ” প্রদান করে থাকে। মেমরিই মূলত, আপনার মিলিয়ন মিলিয়ন ভার্সনের কপির সাথে একটি কনস্ট্যান্ট লিংক প্রদান করে৷

কিন্তু এখানেও একটি সমস্যা রয়েছে। আমরা কন্টিনিউয়িটি বলতে যা বুঝি তা কি ইলিউশন নয় তো? মনে করুন, আপনি থ্রোনের টাইম মেশিনে করে আপনার জীবনের অতীতের সত্তার কাছে পার্কে দেখা করতে চলে গেলেন যখন আপনার বয়স ৬, তারপর আপনি আপনার ২০ বছর বয়সে যাত্রা করলেন, এরপর মধ্যবয়সে এবং অবশেষে ফাইনাল ইয়ারে। এ দৃশ্যকল্পে, আপনারা সবাই একসাথে বসে আছেন এবং জীবনের একই গল্পই শেয়ার করছেন যা আপনার একটি স্বতন্ত্র আইডেন্টিটি থেকেই নির্গত হচ্ছে! আপনার কিশোরের সত্তা আপনার সাথে কথা বলে কিছু মনে করতে পারবেনা, সে আপনাকে অন্য কেউ মনে করবে, ঠিক যেনো ভিন্নগ্রহের কোনো এলিয়েন। আপনার প্রতিটি ভার্সনেরই একটি নাম আছে, ইতিহাসও আছে কিন্তু আপনি কোনো না কোনোভাবে সম্পূর্ণ ভিন্ন কেউ! আপনি এ মুহূর্তে ওয়ার্মহোলের ভেতর ঢুকে শিশুকালের সত্তার সাথে যদি মিট করেন সে আপনাকে চিনবেনা এবং আপনি যদি আপনার ভবিষ্যত সত্তার সাথে দেখা করেন সেও আপনাকে জানবে অচেনা । এখন প্রশ্ন হলো আপনি কে? আপনার বর্তমান সত্তা কি অতীত ও ভবিষ্যত সত্তা থেকে সম্পূর্ণরূপে পৃথক নয়?

আমি কি আমার মেমরি?
কল্পনা করুন একজন ব্যক্তি তার নিজেকে জীবনের বিভিন্ন স্টেজে ভাগ করেছে।

দশ বছর আগে আপনার একটি ভার্সন যে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে কাজ করতো, দশ বছর পর সে তা ভুলে গেছে, তার মধ্যে অন্য কোনো উদ্দেশ্য কাজ করছে। ইনফ্যাক্ট আপনার প্রতিটি ভার্সনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য আলাদা। এছাড়া আপনার জীবনের মেমরি প্রত্যাশার চেয়েও অনেক কম সাধারণ। আপনি পনের বছর বয়সে যা ছিলেন, সে স্মৃতি কিন্তু আপনার মস্তিষ্কে পরিপূর্ণভাবে নেই আর তাই আপনি পনের বছর পূর্বে একচুয়ালি কি ছিলেন তাও আপনার জানা নেই। আপনার প্রতিটি ভার্সনের মেমরিই আলাদা যারা আসলে একই ঘটনাকে পূনরায় রিলেট করার চেষ্টা করছে। কিন্তু কেনো? এর কারণ হলো যে কোনটি আপনার স্মৃতি আর কোনটি নয় তার তারতম্য।

আসলে মেমরি আপনার জীবনের প্রতিটি মুহূর্তের যথার্থ ভিডিয়ো রেকর্ড নয়, এটি আপনার মস্তিষ্কের একটি Random Fluctuation ! সময় অতিবাহিত হওয়ার সাথে যেটি আপনার স্মরণের মাধ্যমে পূনরুজ্জীবন লাভ করে। এক্ষেত্রে আমরা একটি উদাহরণ দিতে পারি, আপনি যা কিছু দেখছেন সবকিছু আপনার মস্তিষ্কে বিশেষ প্যাটার্নের একটিভিটি ট্রিগার করবে। উদাহরণস্বরূপঃ আপনার বন্ধুর সাথে কোনো একটি কনভারসেশনের কারণে আপনার মস্তিষ্কে বিশেষ প্যাটার্নের একটিভিটিজ তৈরি হতে পারে। অন্য আর একটি প্যাটার্ন একটিভেট হতে পারে কফির ঘ্রাণের কারণে। আর অন্য একটি প্যাটার্ন কোনো সুস্বাদু কেক দেখে। ওয়েটার যখন কফিতে তার আঙুল চুবিয়ে দিলো তখন সেটি আপনার মস্তিষ্কে ভিন্ন কনফিগারেশনের আর একটি নিউরাল ফায়ারিং তৈরি করে। এই যে নিউরাল প্যাটার্নের এক একটি কনস্টেলেশন (সম্মেলন) একে অপরের সাথে সংযুক্ত হয়ে আছে সেটি সম্ভব হয়েছে একটি বিশাল এসোসিয়েটিভ নিউরাল নেটওয়ার্ক-এর কারণে যেটি আপনার হিপোক্যাম্পাস পুনরাবৃত্তি করে, বার বার, যদি না এই এসোসিয়েশন ফিক্স হয়। যে নিউরনগুলো এক সঙ্গে একইসময় একটিভ হয় সেগুলো শক্ত কানেকশন তৈরি করেঃ যে সেলগুলো একসাথে ফায়ার হয় তারা একসাথেই সংযুক্ত হয়।

আমি কি আমার মেমরি?
আপনার কোনো একটি ইভেন্টের মেমরি ব্রেন সেলে একটি ইউনিক কনস্টেলেশন রিপ্রেজেন্ট করে যা বিস্তারিত অভিজ্ঞতার সাথে জড়িত।

আর এর ফলে যে নেটওয়ার্ক উৎপাদন হয় তা কোনো একটি ঘটনার ইউনিক চিহ্ন বহন করে এবং এটি আপনার জন্মদিনের ডিনারের স্মৃতিও রিপ্রেজেন্ট করতে পারে। এবার কল্পনা করুন যে ছয়মাস পূর্বে আপনি একটি ক্ষুদ্র ফ্রেন্স কেকের স্বাদ নিয়েছিলেন, এটা অনেকটা আপনার বার্থডে পার্টির কেকের মতো। এ ধরণের স্পেসিফিক চাবিগুলো আপনার মস্তিষ্কের ” Whole web of Association” খুলে দেবে। আপনার মূল কনস্টেলেশন লাইট আপ হবে ঠিক যেমনি সুইচ অন করার পর একটি শহর আলোকিত হয়। এভাবে সহসাই আপনি সেই মেমরিতে ফিরে যাবেন।

যদিও আমরা এটা অনুধাবন করিনা যে আমাদের স্মৃতি খুব একটা সমৃদ্ধ না৷ আপনি জানেন যে আপনার বন্ধু রেস্টুরেন্টে ছিল। সে একটি নীল জামা পড়েছে, একটি টাই ছিলো কিন্তু সেটার কালার কি ছিল আপনি ভুলে গেছেন। আপনি যদি আপনার মেমরি অনুসন্ধান করেন আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনি রেস্টুরেন্টের ডিটেলস স্মরণ করতে পারছেন না যদিও সে স্থানটি পরিপূর্ণ ছিল।

আপনার জন্মদিন অনুষ্ঠানের মেমরি আপনি এখন ভুলে যাচ্ছেন। কেনো? আসলে এর উত্তর হলো এই যে আমাদের মস্তিষ্কে, সসীম সংখ্যক নিউরন রয়েছে , এরা প্রত্যেকেই বিভিন্ন রকম কাজ করে। আপনার মস্তিষ্কে নিউরনের সংখ্যা ৮৬ বিলিয়ন কিন্তু তার মানে তো এই নয় যে এই ৮৬ বিলিয়ন সেল শুধু একটি ঘটনার স্মৃতি ধারণ করে আছে। বিভিন্ন সময় এ নিউরনগুলো ভিন্ন ভিন্ন কনস্টেলেশন বা সম্মেলন তৈরি করে। আপনার নিউরন রিলেশনশিপ শিপ্টিং- এর একটি ডায়নামিক্স মেট্রিক্সের ভেতর কাজ করছে এবং তাদের প্রত্যেকের ভেতর গভীর চাহিদা কাজ কাজ করছে একে অন্যের সাথে ওয়্যার বা যুক্ত হওয়ার জন্য। যে নিউরনগুলির মাধ্যমে আপনি আপনার প্রেমিকার স্মৃতি মনে রেখেছিলেন সেই নিউরনগুলো হয়তো অন্য কোনো মেমরি নেটওয়ার্কে অংশগ্রহণ করার জন্যও co-opted হয়েছিল। মেমরির শত্রু সময় নয়, মেমরি নিজেই। প্রতিটি নতুন ঘটনা আপনার মস্তিষ্কের সীমিত সংখ্যক নিউরনের ভেতর নতুন রিলেশনশিপ স্টাবলিশ করে। কিন্তু বিস্ময়কর ব্যাপার হলো একটি হারিয়ে যাওয়া মেমরি আপনার নিকট হারিয়ে গেছে বলে মনে হয়না। কোনো না কোনোভাবে আপনার মনে হয় যে সম্পূর্ণ ছবি এখানেই উপস্থিত। আজ থেকে এক বছর পূর্বে একটি ঘটনার মেমরি আপনি যতটা মনে করতে পেরেছিলেন তা এখন আর সম্ভব হচ্ছেনা৷ একই ঘটনা জীবনের দুটি ভিন্ন ভিন্ন সময় আপনার নিকট ভিন্ন ভিন্নভাবে দেখা দেয়।

মেমরি কি বিশ্বাসযোগ্য?

ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার প্রফেসর এলিজাবেথ দেখিয়েছিলেন আমাদের মস্তিষ্কের মেমরি খুবই নমনীয়।

তিনি মস্তিষ্কের ভেতর ফলস মেমরি ইমপ্লান্ট করে পরীক্ষামূলকভাবে দেখিয়েছিলেন। এলিজাবেথ লোফটাস এ পরীক্ষাটি করার জন্য সর্বপ্রথম ভলান্টিয়ারদের একটি মুভি দেখান এবং তাদেরকে এক সারি প্রশ্ন করেন তারা সেই মুভিতে কী দেখেছিলেন সে ব্যাপারে। তিনি যে প্রশ্নটি করেছিলেন তিনি যে উত্তর পান এটি সেটাকে প্রভাবিত করে। তিনি বলেন, যখন আমি প্রশ্ন করেছিলাম দুটি কার কতটা দ্রুত গতিতে পথ চলেছিল যখন তারা একে অপরকে আঘাত করেছিল ভার্সাস দুটি কার কতটা দ্রুত গতিতে চলেছিল যখন তারা একে অপরকে Smash করেছিল তখন অংশগ্রহণকারীরা ভিন্ন ভিন্ন গতি অনুমান করে। তিনি বলেন, যখনই আমি Smash শব্দটি ব্যবহার করেছি তখন পার্টিশিপেন্টরা বলেছিলেন, কারটি অত্যন্ত দ্রুত গতিতে পথ চলছে। এ থেকে তিনি বুঝতে পারেন যে লিডিং কোয়েশ্চান আপনার মেমরিকে দূষিত করে।

এটা কি সম্ভব সম্পূর্ণরুপে ফলস মেমরি ইমপ্লান্ট করা? এটা আবিষ্কার করার জন্য, তিনি একদল অংশগ্রহণকারী নিয়োগ করলেন এবং তার দল সে সব অংশগ্রহণকারীর ব্যক্তিগত ইনফরমেশন সংগ্রহ করলেন। সে সকল ইনফরমেশন সাজিয়ে গবেষকরা চারটি গল্প তৈরি করেন যেগুলোর চতুর্থ গল্পটি ছিলো মিথ্যা। চতুর্থ গল্পটি ছিল একজন শিশু হিসেবে একটি শপিং মলে হারিয়ে যাওয়ার যে শিশুটিকে একজন দয়াশীল ব্যক্তি খুঁজে পেয়েছিলেন এবং সে ফাইনালি তার পরিবারের সাথে রি-ইউনাইটেড হতে পেরেছে।

একটি ইন্টারভিউতে অন্তত অর্ধেক পার্টিশিপেন্ট বলেছিল, তারা শপিং মলে হারিয়ে গেছে, যদিও তাদের সাথে এ ধরণের কোনো ঘটনা ঘটেনি, এমনকি তারা বলতে লাগলো, হ্যাঁ, হ্যাঁ আমাদের মনে পড়েছে আর এ ভাবে তারা আরো তথ্য যোগ করতে শুরু করলো। আমাকে যে বৃদ্ধ মহিলা পেয়েছিল তার মাথায় ছিল একটি পাগলাটে টুপি, আমার সাথে ছিল আমার প্রিয় পুতুল এবং আমার মা ছিলেন সম্পূর্ণ উন্মাদ। অতএব শুধুমাত্র মস্তিষ্কের ভেতর ফলস মেমরি তৈরিই করা যায় না, মানুষ এ সকল ফলস মেমরি সহজেই আলিঙ্গন করে এবং তার আইডেন্টিটির ফ্যাব্রিকের ভেতর ফ্যান্টাসির ঝাল বুনে৷

আমাদের অতীতের মেমরি আসলে বিশ্বাসযোগ্য রেকর্ড নয়। এটি পূনর্গঠিত হয়। মাঝেমাঝে এটি মাইথোলজির উপর ভর করে। আমরা যখন অতীতের মেমরি স্মরণ করি তখন আমরা খুব ভালোভাবেই বুঝতে পারি যে আমার অতীতের বিস্তারিত বিবরণ আমার মনে নেই। কিছুকিছু মেমরি তৈরি হয় গল্প থেকে যা মানুষ আমাদের সম্পর্কে বলেছে, আর অন্য মেমরি তৈরি হয় সংঘটিত ঘটনা সম্পর্কে আমাদের ব্যক্তিগত চিন্তা থেকে। অতএব আপনি যদি মনে করেন যে আপনার আপনি আসলে মেমরির যোগফল তবে আমি মনে করি আপনার আইডেন্টিটি অত্যন্ত অদ্ভুত কিছু একটা, চলমান ও পরিবর্তনযোগ্য একটি আখ্যান।

তথ্যসূত্রঃ

অন্যান্য পর্বগুলো পাঠ করুনঃ

  1. ব্রেন; দি স্টোরি অব ইউ
  2. একজন টিনেজারের চোখে বিশ্ব!
  3. আইনস্টাইনের ব্রেনে ওমেগা সাইন!
  4. আমি কি আমার মেমরি?
  5. নিউরোলজিক্যালি আপনি এ মহাবিশ্বে প্রথম!
  6. হোয়াট ইজ রিয়ালিটি?
  7. কিভাবে ব্রেন কাজ করে?
hsbd bg
%d bloggers like this: