পার্সেভারেন্স; রোবটিক্স এস্ট্রো-জিওলজিস্ট
মূলপাতা বিজ্ঞান পার্সেভারেন্স; রোবটিক্স এস্ট্রো-জিওলজিস্ট

পার্সেভারেন্স; রোবটিক্স এস্ট্রো-জিওলজিস্ট

লিখেছেন অ্যান্ড্রোস লিহন
180 বার পঠিত হয়েছে

১৯৫৩ মিলিয়ন  মাইল  পথ অতিক্রম করে ২০৩ দিনের ভ্রমণের পর বৃহস্পতিবার নাসা সবচেয়ে উন্নত ও বড় মাপের রোবার মঙ্গলে পাঠিয়েছেন। NASA’s Jet Propulsion Laboratory সাউথার্ন ক্যালিফোর্নিয়া থেকে 3.55 (PM) মিনিটে  রোবারের সফল Touch Down এর ঘোষণা দিয়েছেন। গ্রাউন্ড ব্রেকিং টেকনোলজিকে ব্যবহার করে মার্স ২০২০ মিশন যাত্রা শুরু করেছিলো 30 Jul 2020 তারিখে। পার্সেভারেন্স মিশন একটি বিলাসবহুল প্রদক্ষেপ যা মার্সের স্যাম্পল সংগ্রহ করে আবার প্লানেটে ফিরে আসবে। নাসার এডমিনিস্ট্রেটর , স্টিভ জুরবুচেন  বলেন, এ অবতরণ গ্লোবাল স্পেস এক্সপ্লোরেসশন ও  ইউনাইটেড স্টেট, নাসার জন্যে একটি কেন্দ্রীয় মুহূর্ত , যখন আমরা জানি যে আমরা আবিষ্কারের চুড়ান্তে রয়েছি এবং আমরা আমাদের পেন্সিলকে ধারালো করে তুলছি নতুন করে বিশ্বের টেক্সট বুক লিখার জন্যে। মার্স ২০২০,  আমাদের জাতির আত্মাকে সংঘঠিত করেছে আরো কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্যে অধ্যাবসায়ী বা  পারসিভারেন্স হওয়ার জন্য , আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে এবং উন্নত করেছে বিজ্ঞান ও গবেষণাকে। মিশন নিজেই ভবিষ্যতের প্রতি অধ্যবসায়ী  হওয়ার জন্য  মানব আদর্শকে ব্যক্ত করে এবং রেড প্ল্যানেটের মানব অনুসন্ধানের জন্য প্রস্তুত হতে সহায়তা করে। “একটি কারের সমান, ২,২৬৩-পাউন্ড রোবটিক জিওলজিস্ট এবং এস্ট্রোবায়োলজিস্ট কয়েক সপ্তাহ পরিক্ষার ভেতর দিয়ে অতিবাহিত করেছে মঙ্গলে তার দুই- বছরের  Mars’ Jezero Crater   ইনভেস্টিগেসন শুরু করার পূর্বে। এই রোভারটি এই অঞ্চলের ভূতত্ত্ব এবং অতীতের ক্লাইমেটের বৈশিষ্ট্য নির্ধারণের জন্য জেজেরোর প্রাচীন লেকবেড এবং নদী ব-দ্বীপের শিলা ও পলির তদন্ত করবে, তবে এর মিশনের  মৌলিক অংশটি জ্যোতির্বিজ্ঞান, এটি একইসাথে এনসায়েন্ট মাইক্রোবিয়াল জীবনের সাক্ষর সন্ধান করবে। আর সে জন্যে , মার্স স্যাম্পল রিটার্ন ক্যাম্পেইন যেটি NASA AND ESA দ্বারা পরিকল্পিত ( ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি) সেটি পৃথিবীর সায়েন্টিস্টদের সে সকল স্যাম্পল নিয়ে গবেষণা করার সুযোগ দেবে যা পারসিভারেন্স সংগ্রহ করবে মঙ্গলের বুক ছিঁড়ে , যে সুনির্দিষ্ট অতীত প্রাণের চিহ্ন খুঁজে বের করবে এমনকিছু যন্ত্র ব্যবহার করে যা বড় ও খুবই জটিল রেড প্লানেটে পাঠানোর ক্ষেত্রে!

 

Image result for perseverance                         NASA‘s Perseverance Rover Lands On Mars, Ready To Search For Life

 

“আজকের উত্তেজনাপূর্ণ ইভেন্টের কারণ, অন্য গ্রহের সাবধানতার সাথে নথিভুক্ত অবস্থানগুলি থেকে প্রথম প্রাচীন নমুনাগুলি পৃথিবীতে প্রত্যাবর্তনের আরও এক ধাপ,” নাসার বিজ্ঞানের সহযোগী প্রশাসক টমাস জুরবুচেন বলেছেন। “ পার্সেভারেন্স মঙ্গল থেকে শিলা এবং নিয়ম ফিরিয়ে আনার প্রথম পদক্ষেপ। আমরা জানি না যে মঙ্গল গ্রহের এই প্রাচীন নমুনাগুলি আমাদের কী বলবে। তবে তারা আমাদের যা বলতে পারে তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে,  এটি হয়তো আমাদের এমন কিছু বলতে পারে যে আমাদের গ্রহের বাহিরেও একসময় প্রাণ ছিলো। প্রায় 28 মাইল (45 কিলোমিটার) প্রশস্ত জেজেরো ক্র্যাটার আইসিডিস প্ল্যানিটিয়ার পশ্চিম প্রান্তে বসে রয়েছে, এটি মার্টিয়ান নিরক্ষীয় অঞ্চলের ঠিক উত্তরে একটি বিশালাকার অববাহিকা। বিজ্ঞানীরা নির্ধারিত করেছেন যে 3.5 মিলিয়ন বছর আগে এই গর্তটির নিজস্ব নদী ব-দ্বীপ ছিল এবং এটি জলে ভরা ছিল।About Us

 

 

জেজেরো ক্র্যাটারের অনুসন্ধানের মাধ্যমে পারসিভিয়ানের জন্য বিদ্যুৎ এবং তাপ সরবরাহ করার শক্তি ব্যবস্থা হ’ল মাল্টি মিশন রেডিওসোটোপ থার্মোইলেক্ট্রিক জেনারেটর বা এমএমআরটিজিMulti-Mission Radioisotope Thermoelectric Generator, or MMRTG) । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব এনার্জি  (DOE ) নাগরিক স্পেস অ্যাপ্লিকেশনগুলির  বিদ্যুৎ ব্যবস্থা বিকাশের জন্য একটি চলমান অংশীদারিত্বের মাধ্যমে নাসাকে এটি সরবরাহ করেছিল। সাতটি প্রাথমিক বিজ্ঞানের যন্ত্র দিয়ে সজ্জিত ( primary science instruments ) , মঙ্গল গ্রহে এখনও পাঠানো সর্বাধিক ক্যামেরা এবং এর অতিপ্রাকৃত জটিল নমুনা ক্যাচিং সিস্টেম – এটি মহাকাশে প্রেরিত তার ধরণের প্রথম – পারসিভারেন্স প্রাচীন জীবাণুবাহী মঙ্গলগ্রহের জীবাশ্মের অবশেষের জন্য জেজেরো অঞ্চলকে পরিমার্জন  করবে এবং নমুনা গ্রহণ করবে।পারসিভিয়ান এখন পর্যন্ত তৈরি করা সবচেয়ে পরিশীলিত রোবোটিক ভূতত্ত্ববিদ বা জিওলসিস্ট , তবে মাইক্রোস্কোপিক জীবন একসময় বিদ্যমান ছিল তা যাচাই করা প্রমাণের এক বিশাল বোঝা বহন করে,” নাসার গ্রহ বিজ্ঞান বিভাগের পরিচালক লরি গ্লেজ বলেছেন। ‘’যদিও আমরা রোভারে আরোহণ করেছি দুর্দান্ত যন্ত্রগুলির সাথে আমরা অনেক কিছু শিখব, যদিও আমাদের নমুনাগুলোর প্রমাণ মঙ্গলে একবার জীবনকে আশ্রয় করেছিল কিনা তা আমাদের এখানে জানাতে পৃথিবীতে অনেক বেশি সক্ষম পরীক্ষাগার এবং যন্ত্র প্রয়োজন হতে পারে।” এটি পড়ুন- হোমো ডিউস কনশাসনেস

 

জেপিএলের পরিচালক মাইকেল ওয়াটকিনস বলেছিলেন, “মঙ্গল গ্রহে অবতরণ করা সবসময় একটি অবিশ্বাস্যরকম কঠিন কাজ এবং আমরা আমাদের অতীতের সাফল্যকে সামনে রেখে গর্বিত। “কিন্তু, পারসিভিয়ান যে সাফল্যকে এগিয়ে নিয়েছে, এই রোভার তার নিজস্ব পথকেও উজ্জ্বল করছে এবং ভূপৃষ্ঠ মিশনে নতুন চ্যালেঞ্জের সাহস পাচ্ছে। আমরা রোভারটি কেবল অবতরণ করার জন্য নয়, পৃথিবীতে প্রত্যাবর্তনের জন্য সর্বোত্তম বৈজ্ঞানিক নমুনাগুলি সন্ধান এবং সংগ্রহ করার জন্য তৈরি করেছি এবং এর অবিশ্বাস্যরকম জটিল নমুনা ব্যবস্থা এবং স্বায়ত্তশাসন কেবল সেই মিশনকেই সক্ষম করে না, তারা ভবিষ্যতের রোবোটিক এবং ক্রু মিশনের জন্য মঞ্চ তৈরি করে।

 

” মঙ্গল প্রবেশিকা, বংশোদ্ভূতকরণ এবং ল্যান্ডিং ইনস্ট্রুমেন্টেশন -২ (এমইডিএলআই 2) সেন্সর স্যুট প্রবেশের সময় মঙ্গলগ্রহের বায়ুমণ্ডল সম্পর্কিত তথ্য সংগ্রহ করেছিল এবং টেরিন-রিলেটিভ ন্যাভিগেশন সিস্টেমটি চূড়ান্ত উত্থানের সময় মহাকাশযানের স্বায়ত্তশাসিতভাবে গাইড করেছিল। উভয় থেকে প্রাপ্ত ডেটা ভবিষ্যতের মানব মিশনগুলিকে ভিন্ন জগতে অবতরণের পথকে সহযতর করে তুলবে  এবং আরো বড় মাপের  সরঞ্জাম সহকারে। অপারেশনস এবং ইনিজিনিয়ারিং (ওয়াটসন) আরও নিরাপদে এবং বৃহত্তর পে-লোড সহ অন্যান্য পৃথিবীতে অবতরণ করতে সহায়তা করবে বলে আশা করা হচ্ছে। মঙ্গলের উপরিভাগে, পারসিভিয়ান বিজ্ঞানের যন্ত্রগুলিতে বৈজ্ঞানিকভাবে আলোকিত করার সুযোগ থাকবে  ম্যাস্টক্যাম-জেড পার্সেভারেন্সের রিমোট সেন্সিং মাস্ট বা মাথার জুম্যাবল সায়েন্স ক্যামেরার একটি জুড়ি যা মার্টিয়ান ল্যান্ডস্কেপের উচ্চ-রেজোলিউশন, রঙিন থ্রি-ডি প্যানোরামাস তৈরি করে। মাস্তুলের  উপরে অবস্থিত, সুপারক্যাম যা লেজার পালস ব্যবহার করে  শিলা এবং পলির রসায়ন অধ্যয়নের জন্য এবং বিজ্ঞানীদের তাদের কঠোরতাসহ পাথরের সম্পত্তি আরও ভালভাবে বুঝতে সাহায্য করার জন্য নিজস্ব মাইক্রোফোন রয়েছে।

 

Image result for perseverance

 

n

আরও পড়ুন

Leave A Comment...

হাইপারস্পেস
চিন্তা নয়, চিন্তার পদ্ধতি জানো...!